কিডনি রোগ থেকে নিরাপদে থাকবেন কিভাবে?

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস March 16, 2017 1,228
কিডনি রোগ থেকে নিরাপদে থাকবেন কিভাবে?

কিডনি রোগের নানা ধরনের লক্ষণ রয়েছে। যথাসময়ে লক্ষণগুলো নির্ণয় করে চিকিৎসা করা সম্ভব হলে সহজেই আরোগ্যলাভ সম্ভব। লক্ষণগুলো তুলে ধরা হলো এ লেখায়।


দীর্ঘমেয়াদি লক্ষণ

মারাত্মক রোগে অনেকেরই কিডনি নষ্ট হয়ে যায়। আর এ প্রক্রিয়াটি সঙ্গে সঙ্গে হয় না। প্রায়ই পাঁচ থেকে ১০ বছর ধরে ধীরে ধীরে এ রোগটি বিস্তার লাভ করে। এতদিন ধরে এ রোগটি বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে রোগী একটু সচেতন হলেই রোগটি নির্ণয় করা সম্ভব। আর সঠিক সময়ে তা নির্ণয় করা সম্ভব হলে কিডনি রক্ষা করাও সম্ভব।


ডায়াবেটিসে সতর্কতা

আপনার যদি ডায়াবেটিস থাকে তাহলে কিডনির রোগের আশঙ্কা বেড়ে যায়। এ কারণে প্রতিবছরই একবার করে কিডনি পরীক্ষা করা উচিত।


সাধারণ কিছু লক্ষণ

কিডনির রোগ যদি বেড়ে যায় তাহলে কিছু লক্ষণে তা অনেকটা নিশ্চিত হওয়া যায়। এগুলো হলো. . .

- হাত, পা ও মুখ ফুলে যাওয়া।

- ঘুমের সমস্যা

- মনোযোগ স্থাপনে সমস্যা

- খাবারের রুচি নষ্ট

- বমি বমি ভাব ও বমি

- দুর্বলতা

- দেহের বিভিন্ন স্থানে চুলকানি

- শুষ্ক ত্বক

- সর্বদা তন্দ্রা ভাব

- অনিয়মিত হৃৎস্পন্দন

- মাংসপেশিতে টান লাগা


প্রাথমিকভাবে লক্ষণগুলো মিলে গেলেই দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। দেরি করলে রোগটি বিস্তার লাভ করতে পারে এবং এতে কিডনি নষ্ট হওয়ারও আশঙ্কা থাকে।