কামনা কমিয়ে দুর্বল করে যেসব খাবার!

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস March 13, 2017 978
কামনা কমিয়ে দুর্বল করে যেসব খাবার!

ইদানিং আপনার সঙ্গীর মেজাজ খারাপ থাকছে। মিলনের ইচ্ছার কথা জানালে মুখ ঘুরিয়ে এক কথায় না বলে দিচ্ছে।আপনি যতবারই তাকে বুঝিয়ে কাছে ডাকছেন, সে যেন আরও বেঁকে বসছে। এ অবস্থায় তাকে কড়া কথা বা বকা দিয়ে তো আর ইচ্ছে পূরণ করা যাবে না। তাহলে এখন?


সঙ্গীর এ অবস্থার জন্য আপনি খাদ্যকে দায়ী করতে পারেন। কিছু খাবার আছে যা গ্রহণে তার যৌন ইচ্ছাকে প্রভাবিত করছে এবং ক্রমশই দুর্বল করে দিচ্ছে।


আপনি জানেন কি? খাদ্যের ওপর নির্ভর করে শরীরের ইস্ট্রজেন ও টেসটোসটের সঠিকভাবে কাজ করা। আর যখন এই দু'টি হরমোনের একটিতে ভারসাম্যহীনতা দেখা দেয়, বিভ্রান্তটা হয় ঠিক তখনি।


কিছু খাবার আপনার গোপন শক্তি বৃদ্ধি করে আবার অনেক খাবার শরীরে হরমোনের মাত্রা হ্রাস করতে পারে। এর মধ্যেই ওই সব খবার আপনাকেই নির্ধারণ করতে হবে, যা আপনার হরমোনের ভারসাম্য ঠিক রাখবে।আর সেই সঙ্গে ক্ষতিকারক খাবারকে এড়িয়ে চলতে হবে।


তার আগে জানা দরকার কোন কোন খাবার আপনার সঙ্গীর যৌন ক্ষমতাকে হ্রাস করছে?


তাহলে অপেক্ষা কিসের? আসুন জেনে নেয়া যাক কোন কোন খাবার আপনার গোপন ইচ্ছাশক্তির ক্ষতি করছে এবং যার কারণে সঙ্গী আপনার নিবেদনে সাড়া দিতে ব্যর্থ হচ্ছে।


নিম্নে যৌনশক্তিকে হ্রাস করে এমন কিছু খাবারের নাম দেয়া হল;


প্রক্রিয়াজাত খাদ্যে: এ জাতীয় খাবারে ব্যবহার করা হয় কৃত্রিম রং, চিনি আর রাসায়নিক দ্রব্য। এই খাবারগুলো শরীরের পুষ্টি সরিয়ে ফেলে খনিজ শুষে নিয়ে আপনাকে দুর্বল করে ফেলে। তাই প্রক্রিয়াজাত খাবারগুলো দ্রুত আপনার খাদ্য তালিকা থেকে বাদ দিন, নইলে যেকোনো সময় আপনি যৌনশক্তি সম্পূর্ণ হারিয়ে ফেলতে পারেন।


ডায়েট সোডা: এই কৃত্রিম মিষ্টি পানীয়টি শরীরের সেরোটোনিনের মাত্রা কমিয়ে ফেলে। কম সেরোটোনিন পুরুষ-নারী উভয়ের কামশক্তিকে কমিয়ে দেয়।


মাইক্রোওয়েভ পপকর্ন: এ জাতীয় পপকর্ন স্বাস্থ্যের জন্য বেশ বিপজ্জনক। প্রথমে বলা যেতে পারে পপকর্ন রাখা প্যাকেট বা ব্যাগের কথা! এই ব্যাগে থাকা বিষাক্ত পারফ্লোরো অক্টানয়িক অ্যাসিড আপনার কামশক্তির মৃত্যু ডেকে আনে। এতে দীর্ঘ মেয়াদে প্রস্টেট সমস্যা হতে পারে, এমনকি মরণব্যাধি ক্যান্সারের কারণ হতে পারে।


গাঁজা: গাঁজা সেবন ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আপনার টেসটোসটের মাত্রা কমিয়ে দিতে পারে। এতে আপনার যৌন ক্ষমতা কমে যাবে এবং আপনার সুখী জীবনে ধস নেমে আসবে। তাই এটাকে সবসময় এড়িয়ে চলাই ভালো।